1. hrhfbd01977993@gmail.com : admi2017 :
  2. editorr@crimenewsmedia24.com : CrimeNews Media24 : CrimeNews Media24
  3. editor@crimenewsmedia24.com : CrimeNews Media24 : CrimeNews Media24
বৃহস্পতিবার, ০৭ জুলাই ২০২২, ০৬:৩৭ পূর্বাহ্ন
ব্রেকিং নিউজ
"ফটো সাংবাদিক আবশ্যক" দেশের প্রতিটি থানা পর্যায়ে "ক্রাইম নিউজ মিডিয়া" সংবাদ সংস্থায় ১জন রিপোর্টার ও ১জন ফটো সাংবাদিক আবশ্যক। আগ্রহী প্রার্থীরা  যোগাযোগ করুন। ইমেইলঃ cnm24bd@gmail.com ০১৯১১৪০০০৯৫

সংঘবদ্ধ ভূমিদশ্যূ প্রতারক জোরপূর্বক জমি দখল ও খুন করার হুমকি দেওয়ার অভিযোগ

  • আপডেট সময় সোমবার, ৫ এপ্রিল, ২০২১, ১২.৪৯ পিএম
  • ১৭৬ বার পড়া হয়েছে
সংঘবদ্ধ ভূমিদশ্যূ প্রতারক জোরপূর্বক জমি দখল ও খুন করার হুমকি দেওয়ার অভিযোগ

মোঃ আলম :

রাজধানী কদমতলী থানাধীন মোহাম্মদবাগ সিএনজি গ্যারেজ এলাকায় সংঘবদ্ধ ভূমিদশ্যূ প্রতারক চক্রের একটি সংঘবদ্ধ প্রতারক চক্র জোরপূর্বক জমি দখল করার
ষড়যন্ত্র করছে। জমির প্রকৃত মালিকপক্ষ স্থানীয় কদমতলী থানায় প্রতারকচক্রের বিরুদ্ধে আইনগত ব্যবস্থা নেয়ার জন্য গত ২ মার্চ লিখিত অভিযোগ দিয়েও জমির মালিকপক্ষ প্রতারকচক্রের হাত থেকে রেহায় পাচ্ছে না ।কদমতলী থানার পুলিশ রহস্যজনকভাবে প্রতারক চক্রের বিরুদ্ধে কোন আইনগত ব্যবস্থা না নেয়াতে সংঘবদ্ধ প্রতারক ভূমিদশ্যূরা জমির মালিক ও তার পরিবারের লোকজনদেরকে নির্মমভাবে খুন করে তাদের লাশ গুম করে ফেলার ও তাদের বিরুদ্ধে স্থানীয় থানায় ও আদালতে মিথ্যা মামলা দিয়ে জেল খাটানোর হুমকি দিচ্ছে বলে জানান।
জমির মালিক রাজধানী যাত্রাবাড়ী থানার কাজলা উত্তর পাড়া হালটপাড় এলাকার মো : রশিদ হাওলাদারের ছেলে মো: নুরুল আমিন রিপন (৩৪) বাদী হয়ে সংঘবদ্ধ ভূমি দশ্যূ প্রতারকচক্রের প্রধান মুন্সীগঞ্জ জেলার টঙ্গিবাড়ি উপজেলার নয়াগাঁও গ্রামের বর্তমানে শ্যামপুর থানাধীন ৪৬নং পশ্চিম ধোলাইপাড় সাবান ফ্যাক্টরী এলাকায় স্বপরিবারে বসবাসরত।
মো : বিল্লাল হোসেন মোল্লা (৪৫) ও তার স্ত্রী ফাতেমা বেগম (৩৫) মোহাম্মদবাগ এলাকার সরকার দলীয় নামধারী নেতা আমিরুল কদমতলী থানার উপ-পুলিশ পরিদর্শক বাদশা আলম অজ্ঞাতনামা ৪/৫জন সন্ত্রাসী-মাস্তানদের বিরুদ্ধে আইনগত ব্যবস্থা নেয়ার জন্য গত ২৪শে মার্চ মহা-পুলিশ পরিদর্শক (আইজিপি) ঢাকা, মহানগর পুলিশ কমিশনার ও ঢাকা মহানগর ওয়ারী বিভাগের উপ-পুলিশ কমিশনারের নিকট অভিযোগ দায়ের করেন।
অভিযোগ গুলি তদন্ত করছে রাজধানী কদমতলী থানার উপ-পুলিশ পরিদর্শক মনিরুজ্জামান।
খোঁজ নিয়ে জানা গেছে, জিলা ঢাকা ডেমরা ও সাব রেজিষ্ট্রারী অফিস ডেমরা অধিন ঢাকা কালেক্টারীর তৌজিভুক্ত সাবেক ৩৩৪নং হালে ১৫২ নং মৌজা কদমতলী স্থিত সি.এস ৫০৯নং এস,এ ৬৮৪নং খতিয়ানের লিখিত সি.এস ও এস, এ ৯৮১নং দাগের এবং ঢাকা মহানগর কদমতলী থানার কদমতলী মৌজার খতিয়ান নং ৯২৮৭ দাগ নং ৫৪৮৫-৫৭৫৭ জমির পরিমাণ .২৩৮ অযুতাংশ জমি, অভিযোগকারীর পিতা
মো : রশিদ হাওলাদার গত ০২/০৭/১৯৯৬ইং তারিখে জমি ক্রয় করে ভোগদখল করে আসিতেছে। যাহা ঢাকা মহানগর ডেমরা সাব-রেজিষ্টার অফিসের রেজিষ্ট্রী দলিল নং ৪৪১৬-৪৩৯৫ তারিখ ০২/০৭/১৯৯৬ইং।

জমির মালিক রশিদ হাওলাদারের অনুপস্থিতে ইতিমধ্যে উল্লেখিত ভূমিদশ্যূরা রশিদ হাওলাদারের উক্ত জমিটি দখল করে নেয়ার পায়তারা করে আসছে এবং উক্ত জমিতে ঘরবাড়ি বানানোর তৎপরতা চালিয়ে আসছে বলে জানাগেছে।
উক্ত ঘটনার ব্যাপারে প্রতিবেদক ঘটনাস্থল মোহম্মদবাগ এলাকায় সরজমিনে পরিদর্শনে গিয়ে মো: বিল্লাল হোসেন মোল্লা ও তার স্ত্রী ফাতেমা বেগম আমিরুল ও তাদের সহযোগীদেরকে পাওয়া যায়নি।
এলাকাবাসী ও আশপাশ এলাকার লোকেরা প্রতিবেদককে জানায় মোহাম্মদবাগ এলাকার চিহ্নিত ভূমি দশ্যূ ও সংঘবদ্ধ প্রতারক চক্রের সক্রিয় সদস্য আমিরুলের পরোক্ষ সহযোগীতায় ও সরকার দলীয় নেতার প্রভাব খাটিয়ে মো: বিল্লাল হোসেন মোল্লা ও তার স্ত্রী ফাতেমা বেগম এবং তাদের সন্ত্রাসী মাস্তান সহযোগীরা রশিদ হাওলাদারের জমিটি জোরপূর্বক দখল করে নেয়ার তৎপরতা চালিয়ে আসছে বলে জানায়।
উক্ত ঘটনার ব্যাপারে মো: বিল্লাল হোসেন মোল্লা ও তার স্ত্রী ফাতেমা বেগম-এর সাথে মোবাইল টেলিফোনে প্রতিবেদকের কথা হলে তারা প্রতিবেদককে উক্ত জমিটির মালিক মো: বিল্লাল হোসেন মোল্লা এবং জমিটির তদারকি করছে ফাতেমা বেগম।
তাহারা আরো জানায় বার বছর পূর্বে আমিরুলের কাছে জমি ক্রয় করে এবং প্রতিবেদকের সাথে সরাসরি এ ব্যাপারে কথা বলবে না এবং উক্ত জমির কোন কাগজপাতিও কদমতলী থানার পুলিশ সব ম্যানেজ করে দিবে বলে জানায়।
কদমতলী থানার উপ-পুলিশপরিদর্শক বাদশা আলমের মোবাইল টেলিফোনে প্রতিবেদকের কথা হলে সে প্রতিবেদককে জানায় গত ২১/০৩/২০২১ইং তারিখে অভিযোগকারী রিপন থানায় কোন অভিযোগ দিয়েছে কিনা দেখে জানাবে এবং ঘটনাটি কদমতলী থানার উপ-পুলিশ পরিদর্শক মনিরুজ্জামান তদন্ত করছে বলে জানায়।

আইজিপি ডিএমপি কমিশনার ও ওয়ারী বিভাগের ডিসির নিকট দায়ের করা মো: নুরুল আমিন রিপনের অভিযোগের ঘটনার ব্যাপারে কদমতলী থানার উপ-পুলিশ পরিদর্শক মনিরুজ্জামানের সাথে মোবাইল টেলিফোনে কথা হলে সে প্রতিবেদককে (মো: আলম) কে খুজছে এবং দুজন সাংবাদিকের নাম উল্লেখ করে রহস্যজনকভাবে বলে সাংবাদিকরা আপনার সাথে যোগাযোগ ও ফোন করে জানায়নি ? আপনার সাথে এ ব্যাপারে কথা বলবে এবং উক্ত ঘটনার ব্যাপারে পাঁচমিনিট পরে জানাবে বলে ফোনটি কেটে দেয়। পরবর্তীতে আবার তাকে ফোন দিলে সে রিসিভ করেনি। উক্ত ঘটনাসহ মো: বিল্লাল হোসেন মোল্লা ও তার স্ত্রী ফাতেমা বেগম, আমিরুলসহ তাদের অন্যান্য সহযোগীদের বিরুদ্ধে বিভিন্ন অপরাধমূলক গুরুত্বপূর্ণ তথ্য বলেছে।

পরবতীতে সংবাদ প্রকাশ করা হবে।

 

শেয়ার করুন

এ জাতীয় আরো খবর
themesbazar_crimenew87
© All rights reserved © 2015-2021
Site Customized Crimenewsmedia24.Com