1. hrhfbd01977993@gmail.com : admi2017 :
  2. editorr@crimenewsmedia24.com : CrimeNews Media24 : CrimeNews Media24
  3. editor@crimenewsmedia24.com : CrimeNews Media24 : CrimeNews Media24
বৃহস্পতিবার, ২৯ ফেব্রুয়ারী ২০২৪, ০৬:৪৪ পূর্বাহ্ন
ব্রেকিং নিউজ
"ফটো সাংবাদিক আবশ্যক" দেশের প্রতিটি থানা পর্যায়ে "ক্রাইম নিউজ মিডিয়া" সংবাদ সংস্থায় ১জন রিপোর্টার ও ১জন ফটো সাংবাদিক আবশ্যক। আগ্রহী প্রার্থীরা  যোগাযোগ করুন। ইমেইলঃ cnm24bd@gmail.com ০১৯১১৪০০০৯৫
সংবাদ শিরোনাম ::
পিএসসির প্রতিটি কাজে স্বচ্ছতা, জবাবদিহিতা নিশ্চিত করার নির্দেশ রাষ্ট্রপতির জনগণের সেবা এবং সন্ত্রাস দমন করুন: পুলিশের প্রতি প্রধানমন্ত্রী বিএনপিকে ভুলের খেসারত দিতে হবে : ওবায়দুল কাদের যুগান্তরের ২৫ তম প্রতিষ্ঠা বার্ষিকী পালিত বাংলাদেশে বৈশ্বিক গণমাধ্যম তৈরিতে সহযোগিতা করবে কাতার: তথ্য প্রতিমন্ত্রী স্বাধীন বিচার বিভাগ ও শক্তিশালী সংসদ দেশকে উন্নয়নের পথে এগিয়ে নিতে পারে : প্রধানমন্ত্রী ধর্ম ও দেশের নিরাপত্তার জন্যই আওয়ামী লীগ সরকার আবারো ক্ষমতায় : ইঞ্জি. মো. আবদুস সবুর এমপি তিতাসের স্বর্ণের দোকানে ডাকাতি, গ্রেফতার-২ প্রতিবেশীদের সাথে বন্ধুত্বপূর্ণ সম্পর্ক বজায় রেখে ‘সামুদ্রিক সম্পদ’ আহরণ করুন: প্রধানমন্ত্রী ভূয়াচক্র….খুব ভয়ঙ্কর

পুলিশের সহায়তায় ৬ বছর পর মা-বাবার বুকে আমানউল্লাহ

  • আপডেট সময় বৃহস্পতিবার, ১৭ ফেব্রুয়ারী, ২০২২, ২.১৯ পিএম
  • ১৪৫ বার পড়া হয়েছে

পাবনা জেলা পুলিশের সহযোগিতায় হারিয়ে যাওয়ার ছয় বছর পর পরিবার ফিরে পেয়েছে মো. আমানউল্লাহ (১২) নামের এক শিশু। বুধবার (১৬ ফেব্রুয়ারি) সন্ধ্যায় পরিবারের সদস্যদের কাছে শিশুটিকে হস্তান্তর করে আতাইকুলা থানা পুলিশ। এ সময় হারানো সন্তানকে ফিরে পেয়ে পরিবারে তৈরি হয় এক আবেগঘন পরিবেশ।

থানা সূত্রে জানা গেছে, এসআই শহিদুর রহমান গত ১৫ ফেব্রুয়ারি পাবনা জেলার আতাইকুলা থানার আতাইকুলা ইউপি এলাকায় ডিউটি করাকালীন ৯৯৯-এর সংবাদের ভিত্তিতে আমানউল্লাহকে উদ্ধার পরে থানায় নিয়ে আসেন। বিষয়টি পাবনা পুলিশ সুপার মোহাম্মদ মহিবুল ইসলাম খান জেলা পুলিশ পাবনার ফেসবুক পেজে প্রচার করেন।

পরে এসআই শহিদুর রহমান শিশুটিকে সঙ্গে নিয়ে সাঁথিয়া থানাধীন নারিয়াগোদাই গ্রামস্থ হাসান আলীর বাড়িতে যাওয়ামাত্রই বাড়ির লোকজন শিশুটিকে চিনতে পারে। শিশুটির আপন দাদি, চাচা, ফুফুসহ স্থানীয় লোকজন শিশুটিকে তাদের ছয় বছর আগে হারিয়ে যাওয়া শিশু আমানউল্লাহ হিসেবে শনাক্ত করেন।

আমানউল্লাহর চাচা মো. হাসান আলী জানান, ছয় বছর আগে শিশুটির মা তার বাবাকে ছেড়ে শিশুটিকে ফেলে রেখে অন্যত্র বিয়ে করে চলে যান।

এদিকে আমানউল্লাহ বাসা খুঁজে না পেয়ে গাবতলী, সাভার, সাভারের উলাইনসহ জামালপুর জেলার বিভিন্ন জায়গায় তার মা-বাবার ঠিকানা খুঁজতে থাকে এবং পাশাপাশি বিভিন্ন লোকের দোকানে কাজকর্ম করে।

অন্যদিকে সন্তান হারানোর পর তার বাবা সিরাজুল ইসলাম ঢাকায় গিয়ে বিভিন্ন জায়গায় খুঁজতে থাকেন। তিনি সন্তাকে পেতে ঢাকার গাবতলীর বিভিন্ন কারখানায় কাজকর্ম করেন। তবু খুঁজে পাননি সন্তানকে।

তিনি বলেন, ছয় বছর আগে ছেলেকে হারিয়েছি। দিশেহারা হয়ে ঢাকার অলিতে-গলিতে খুঁজে ফিরেছি। ছেলেকে পাওয়ার আশায় গাবতলী এলাকায় শ্রমিকের কাজ করেছি। একসময় আশা ছেড়েই দিয়েছিলাম। ছয় বছর পর আজ আমাদের পরিবারে শান্তি ফিরেছে।

আতাইকুলা থানা পুলিশের ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) জালাল উদ্দিন ঢাকা পোস্টকে বলেন, ৯৯৯ নম্বরে কল এলে আমি সেখানে পুলিশের ফোর্স পাঠিয়ে ছেলেটিকে উদ্ধার করে বাড়িতে পৌঁছে দিয়েছি। অনেক দিন পর ছেলেকে ফিরে পেয়ে বাড়িতে স্বজনদের মধ্যে এক আবেগঘন পরিবেশের সৃষ্টি হয়। ছেলেটিকে প্রকৃত পরিবারের কাছে ফিরে দিতে পেরে আমাদেরও খুব ভালো লাগছে।

শেয়ার করুন

এ জাতীয় আরো খবর
themesbazar_crimenew87
© All rights reserved © 2015-2021
Site Customized Crimenewsmedia24.Com