1. hrhfbd01977993@gmail.com : admi2017 :
  2. editor@crimenewsmedia24.com : CrimeNews Media24 : CrimeNews Media24
সোমবার, ২১ জুন ২০২১, ০৭:৫৩ পূর্বাহ্ন
ব্রেকিং নিউজ
"ফটো সাংবাদিক আবশ্যক" দেশের প্রতিটি থানা পর্যায়ে "ক্রাইম নিউজ মিডিয়া" সংবাদ সংস্থায় ১জন রিপোর্টার ও ১জন ফটো সাংবাদিক আবশ্যক। আগ্রহী প্রার্থীরা  যোগাযোগ করুন। ইমেইলঃ cnm24bd@gmail.com ০১৯১১৪০০০৯৫

বড় ভাইয়ের সন্তানসহ স্ত্রীকে ভাগিয়ে বিয়ে করেছেন ছোট ভাই

  • আপডেট সময় শুক্রবার, ২১ মে, ২০২১, ৫.০৫ পিএম
  • ৫৬ বার পড়া হয়েছে
বড় ভাইয়ের স্ত্রীকে ভাগিয়ে বিয়ে করেছেন ছোট ভাই

সিএনএম প্রতিনিধিঃ

ঢাকার ধামরাইয়ে বড় ভাইয়ের সন্তানসহ স্ত্রীকে ভাগিয়ে বিয়ে করেছেন ছোট ভাই মোঃ রাকিব হোসেন (১৯)। এ ব্যাপারে বড় ভাই রবিউল থানায় অভিযোগ দায়ের করেছেন ছোট ভাই রাকিবের বিরুদ্ধে।

শুক্রবার (২১ মে) দুপুরে অভিযোগের বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন ধামরাই থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা মোহাম্মদ আতিকুর রহমান (পিপিএম)। দুই সন্তানকে জিম্মি করে ছোট ভাই রাকিব ৫ লক্ষ্য টাকা দাবি করছেন বলে অভিযোগে উল্লেখ রয়েছে।

গত (৯ মে) অভিযুক্ত রাকিব তাঁর ভাইয়ের দুই সন্তানসহ স্ত্রীকে নিয়ে বাড়ি থেকে পালিয়ে যায়। পরের দিন ১০ মে তারা ঢাকার মোহাম্মদপুরে বিয়ে করেন বলে জানা যায়।

দুই ভাই ধামরাই উপজেলার রোয়াইল ইউনিয়নের দধিঘাটা এলাকার ইশার আলীর ছোট ছেলে সৌদি প্রবাসী মোঃ রাকিব হোসেন (১৯) ও বড় ছেলে রবিউল ইসলাম (২৬)। বড় ভাই রবিউল ইসলাম ঢাকার একটি প্রেসে কাজ করেন।

রবিউলের স্ত্রী আরিফা আক্তার (২২) মানিকগঞ্জ জেলার সদর থানার কইতরা এলাকার মোঃ নজরুল ইসলামের মেয়ে। সে প্রায় ৬ বছর পূর্বে রবিউলকে বিয়ে করেন। তাদের আরহান (৫) ও ইব্রাহীম (২) নামে দুটি ছেলে সন্তান রয়েছে।
ভুক্তভোগী মোঃ রবিউল হোসেন বলেন, আমি বিদেশে যাওয়ার প্রস্তুতি নিচ্ছি। এজন্য চাচার কাছ থেকে ৩ লাখ টাকা নিয়ে ঘরে রাখি। এই সুযোগে ঘরে থাকা নগদ টাকা ও স্বর্ণালংকার নিয়ে আমার স্ত্রী আমারই ছোট ভাইয়ের সাথে পালিয়ে গিয়ে বিয়ে করে। আমি সম্মানের দিকে তাকিয়ে এতো দিন কাওকে কিছু বলি নাই। কিন্তু রাকিব আমার সন্তানকে জিম্মি করে আরও ৫ লাখ টাকা চাচ্ছে। স্ত্রী আর ভাই আমার জীবন অতিষ্ঠ করেছে তাদের দরকার নাই। আমার দুই ছেলেকে ফিরিয়ে দিলেই আমি সম্মান নিয়ে বাঁচার অনুপ্রেরণা পাবো।

অভিযুক্ত মোঃ রাকিব হোসেন বলেন, আমি আমার ভাবিকে আমার পরিবার ও আমার ভাইয়ের চাপে বিয়ে করতে বাধ্য হয়েছি। এই মাসের ১০ তারিখে আমরা বিয়ে করে বর্তমানে ঢাকায় আছি। কিন্তু আমার ভাইয়ের কাছে কোন টাকা পয়সা আমি চাইনি। উল্টো আমি তাকে টাকা দিয়েছি।
রবিউলের স্ত্রী আরিফা আক্তার বলেন, আমার বাবার বাড়ি থেকে টাকা আনার জন্য চাপ দিয়ে নানাভাবে নির্যাতন করতো রবিউল। ওর ছোট ভাই আমার দেবরের কাছ থেকেও টাকা চাইতে বলতো আমাকে। আমি টাকা না চাওয়াতে আমার স্বামী বলতো তুই রাকিবের কাছে টাকা নেছ না কেন। তোর সাথে ওর প্রেমের সম্পর্ক আছে। তোদের বিয়ে পরিয়ে দিবো দুজনকে। এমন নানা রকম চাপের কারণে আমরা বিয়ে করতে বাধ্য হয়েছি। তবে আমি আর রবিউলের সাথে থাকতে চাই না।

ধামরাই থানার পরিদর্শক মোহাম্মদ আতিকুর ইসলাম জানান, রবিউল নামের এক যুবক এরকম একটি অভিযোগ দিয়েছে। তদন্ত সাপেক্ষে আইনানুগ ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।

শেয়ার করুন

এ জাতীয় আরো খবর
themesbazar_crimenew87
© All rights reserved © 2015-2021
Theme Download From ThemesBazar.Com